হৃদযন্ত্রের আকার শনাক্ত করবে কম্পিউটার

heart rate,normal heart rate,normal pulse rate
heart rate

মার্কিন গবেষকরা নতুন এক কম্পিউটার নিরাপত্তাব্যবস্থা উদ্ভাবন করেছেন।এই নতুন প্রযুক্তি মানুষের হৃদযন্ত্রের আকার শনাক্তকরণে অভিনব উপায় হিসেবে কাজে লাগাবে।গবেষকরা দাবি করেছেন এই নতুন পদ্ধতিতে স্মার্টফোনে ব্যবহারের পাশাপাশি বিমানবন্দরের নিরাপত্তা কাজেও লাগানো যাবে। এছাড়া এই পদ্ধতি নিরাপদ ও প্রচলিত পাসওয়ার্ড কিংবা অন্যান্য বায়োমেট্রিক পদ্ধতির তুলনায় নিরাপদ। গবেষকরা বলেন যারা প্রাইভেসি বা ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সচেতন তাদের কম্পিউটারে পদ্ধতিতে আনতে চান। এ সম্পর্কে জানা গেছে নিউইয়র্কের  বাফেলো বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ওয়েনইয়াও  এই গবেষণা বিষয়ক নিবন্ধের মূল লেখক।তার ভাষ্য অনুযায়ী মানুষের হৃদযন্ত্র অন্যান্য দুজন মানুষের হৃদযন্ত্রের আকারে কোন মিল পাওয়া যায় না। সাধারণত মানুষের হার্টের আকার পরিবর্তন হয় না। কিন্তু কখনো কখনো মারাত্মক হৃদরোগ হলে তা বদলাতে পারে। বিশেষজ্ঞরা এই গবেষণা যুক্তরাষ্ট্রের উটা মোবাইল কম্পিউটিং অ্্যান্ড কমিউনিকেশন এর বার্ষিক 23তম সম্মেলনে উপস্থাপন করেছেন বলে জানা গেছে। ফেসিয়াল পিকনিক বা ফিঙ্গারপ্রিন্ট কম্পিউটার আইডেন্টিফিকেশন প্রযুক্তির কথা ভুলে যান।
দেখা যাক এই নতুন প্রযুক্তিগত পদ্ধতি কতটুকু সফলতা পায়। এ বিষয়ে গবেষক ইয়ু বলেন বারবার লগআউট বা লগইন করাটা বিরক্তকর। অন্যরা যাতে কম্পিউটার লগ ইন করতে না পারেন সেজন্য এ পদ্ধতিতে কম মাত্রার ড্রপলার রাডার ব্যবহার করা হয় য়া হৃদয়ন্ত্রে নজরদারি করে। শুধু তাই নয় শুরুতে হার্ডস্ক্যান করতে প্রায় 8 সেকেন্ড  সময় লাগে। তারপর সিস্টেমটি হৃদযন্ত্র শনাক্ত করতে পারে খুব সহজেই। অধ্যাপক ওয়েনইয়াও ইয়ু আরো বলেন গবেষকদের তৈরি রাডার সিস্টেমে সংকেতের শক্তি ওয়াইফাই এর চেয়ে কম বলে তা মানুষের জন্য ঝুকি তৈরি করে না। এমনকি এটি তৈরিতে তিন বছর ধরে তারা কাজ করেছেন। এই যন্ত্রের আকার গঠন ও নাড়াচাড়া বিশ্লেষণ করে এই গবেষণামূলক নতুন পদ্ধতিতে কাজ করে।

Post a Comment

0 Comments