সমুদ্রে বসানো ডাকবক্স

The post box in the sea,Post box, sea
The post box in the sea

চিঠির দিন শেষ হয়ে গেছে অনেক আগে থেকেই। এখন কাউকে চিঠি লেখে না কলমের। কালির খরচ করে পাতার পর পাতা লিখে খবর জানার মতো সময় এখন আর কোথায়। কারন হোয়াটসঅ্যাপ  ইমেইল এর মাধ্যমে চিঠি পাঠান সবাই। ফলে সাদা কাগজে লেখা বড্ড বেমানান বলে ভাবেন অনেকে। তাই শহরের আনাচে কানাচে কিংবা গ্রামের কোন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যে লাল রং এর পোস্টবক্স গুলোর একসময় জনপ্রিয়তা ছিল সেগুলো যথাস্থানে খুব কমই দেখা যায়।
কিন্তু এসবের মধ্যে উজ্জ্বলভাবে রয়েছে সমুদ্রের গভীরে একটি পোষ্টবক্স। এই পোষ্টবক্স রয়েছে জাপানের সুসামি শহরে। সমুদ্র সৈকত থেকে 10 মিটার দূরে এবং 32 ফুট গভীরে বসানো রয়েছে পোষ্টবক্সটি। জাপানের এই শহরে মূলত মৎস্যজীবী মানুষের বসবাস। প্রায় 5 হাজার মৎস্যজীবী এখানে থাকেন।1999 সালের এপ্রিল মাসে পর্যটকেরা প্রসারের জন্য গভীর সমুদ্রে এই পোস্টবক্স বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। প্রতি বছর হাজার হাজার চিঠি জমা পড়ে এই পোস্টবক্সে। এমনকি পর্যটকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এটা দেখতেও যায়।

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এখনো পর্যন্ত প্রায় 36 হাজার চিঠি পড়েছে এই পোস্টবক্সে পর্যটকরা ওয়াটার প্রুফ কাগজ এ ওয়াটার প্রুভ মার্কার পেন দিয়ে চিঠি লিখে গভীর সমুদ্রে চিঠি পোস্ট করেন সেখান থেকে পোস্টাল ডাইভাররা চিঠিগুলো তুলে এনে সেগুলোকে পাঠিয়ে দেন স্থানীয় ডাকঘরে। রং আর মেরামতির জন্য 6 মাস পরপর পোস্টবক্স টি তুলে আনা হয়। দুটি পোস্টবক্স  এভাবে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে রেখে আসা হয় সমুদ্রের তলায়। প্রতিবছর কত পর্যটক ড্রাইভিং এর এই বক্সের কাছে ছুটে আসেন ।বক্সের এই বিশেষত্বের জন্যই এই পোস্টবক্সে প্রতিবছর হাজার লোকের ভিড় চোখে পড়ে জমা পড়ে অনেক চিঠি ও।

Post a Comment

0 Comments